Get Even More Visitors To Your Blog, Upgrade To A Business Listing >>

পবিত্র শাওয়াল মাসের দ্বিতীয় খুৎবা:সমসাময়িক বিষয়সহ ইমাম সাহেবের গুরুত্বপূর্ণ বয়ান----











পবিত্র শাওয়াল মাসের দ্বিতীয় জুমার দিনে মহান আল্লাহর ঘরে আযান ধ্বনিত হবার আগে উপস্তিত হয়ে জুমার নামাজ আদায় করার সৌভাগ্য অর্জন করার জন্য আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।আলহামদুল্লাহ।সেই সাথে প্রিয় নবী মুহম্মদ (সা:) এর উপর লাখো কোটি দরুদ পেশ করছি।(সাল্লাহুআলাইহিসসালাম)।একজন মুসলমানের এই সংক্ষিপ্ত দুনিয়াবী জীবনে পবিত্র জুমার দিনের গুরুত্ব অত্যন্ত ব্যাপক ও বিস্তৃত।পবিত্র আল-কোরাআন ও আল-হাদিসে জুমার দিনের বরকতময় ফজিলতের বর্ণনা লিপিবদ্ধ আছে।পবিত্র কোরাআনের সূরা আল-জুমুআ এর ৯ নং আয়াতে মহান আল্লাহ স্বয়ং নিজেই বলেছেন“হে ,ইমানদারগণ,জুমার নামাযের আযান  দেওয়া হলে তোমরা আল্লাহর স্বরণে তাড়াতাড়ি ছুটে যাও এবং ক্রয়-বিক্রয় পরিত্যাগ  কর”।প্রবিত্র কোরাআনের এই আয়াত দ্বারা আমাদের এটাই শিক্ষা দেওয়া হয়েছে আমাদের পার্থিব জীবনের ব্যবসা-বাণিজ্য ও কেনা বেচার চেয়ে জুমার নামায আদায় করা অধিকতর শ্রেষ্ঠতম।হযরত আউস বিন আউস (রাঃ) বলেন, রাসূলুল্লাহ (সাল্লাহুআলাইহিসসালাম) বলেছেন “তোমাদের দিন সমূহের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ দিন হল জুমার দিন। এই দিনে আদমকে সৃষ্টি করা হয়েছে, এই দিনে তাকে মৃত্যু দেওয়া হয়েছে, এই দিনে সিংগায় ফু দেওয়া হবে এবং মহা বিপর্যয়ও (ক্বিয়ামত) ঘটবে এই দিনেই। তাই এই দিনে তোমরা বেশি বেশি আমার উপর দরুদ পাঠ করবে;কেননা তোমাদের দরুদ আমার উপর বখশান হয় জুমার দিনে।” পবিত্র হাদিসের এই বাণী থেকে আমরা একটা বিষয়কে অভ্যাসে পরিণত করব সেটা হল আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনের সকল শুভ কাজ পবিত্র জুমার দিনে করার চেষ্টা করব।পবিত্র শাওয়াল মাসের দ্বিতীয় জুমার দিনে মসজিদের খতিব সাহেব নির্ধারিত খুৎবা-এর উপর সমসাময়িক বিষয়ের প্রেক্ষিতে বিস্তারিত আলোচনা তুলে ধরেন।ইমাম সাহেব দুইটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোকপাত করেন।

১.প্রথমত ইমাম সাহেব পবিত্র কোরাআনের সূরা আন -নূরের ২৭ ও ২৮ নং আয়াতের তেলাওয়াত করে শুনান এবং বাংলায় তরজমা সহ তাফসীর প্রদান করেন।উক্ত সূরার ২৭নং আয়াতে বলা হয়েছে,“ হে মুমিনগণ, তোমরা নিজেদের গৃহ ব্যতীত অন্য গৃহে প্রবেশ করো না, যে পর্যন্ত আলাপ-পরিচয় না কর এবং গৃহবাসীদেরকে সালাম না কর। এটাই তোমাদের জন্যে উত্তম, যাতে তোমরা স্মরণ রাখ ”। সূরাটির ২৮নং আয়াতে বলা হয়েছে,“যদি তোমরা গৃহে কাউকে না পাও, তবে অনুমতি গ্রহণ না করা পর্যন্ত সেখানে প্রবেশ করো না। যদি তোমাদেরকে বলা হয় ফিরে যাও, তবে ফিরে যাবে। এতে তোমাদের জন্যে অনেক পবিত্রতা আছে এবং তোমরা যা কর, আল্লাহ তা ভালোভাবে জানেন ”।উক্ত আয়াত দুটির তা্ফসীরে ইমাম সাহেব বললেন ,শান্তির ধর্ম  ইসলামের গাইডলাইন মহাগ্রন্থ আল কোরাআন সকল মানুষকে সঠিক পথে চলার যে দিক নির্দেশনা আজ থেকে ২০০০ বছর আগে দান করেছেন তা আজ অক্ষরে অক্ষরে সঠিক বলে প্রমাণিত হয়েছে।সুবহানআল্লাহ।আমরা যদি শেষ নবীর দেখানো পথে আমাদের ব্যক্তি জীবন,পারিবািরক জীবন,সমাজ জীবন ও সর্বোপরি রাষ্ট্রীয় জীবনকে অতিবাহিত করতে পারি তবে পরকালীন জীবন আমাদের জন্য হবে কল্যাণময়।
২.দ্বিতীয়ত ইমাম সাহেব আলোচনা করলেন একজন মুসলমানের উপর আরেক মুসলমানের হক নিয়ে।হক মানে ঐসব কাজ যা অবশ্যই পালনীয়।প্রথম হক হল একজন মুসলমান অসুস্থ হলে তারে খোঁজ খবর নেওয়া ।ও প্রয়োজনে তার বাড়িতে গিয়ে তার সাথে দেখা সাক্ষাত করা।তার য়থাসম্ভব সেবা-যত্ন করা।দ্বিতীয় হক হল কোন মুসলমান ভাই ইন্তেকাল করলে তার দাফন-কাফনে শরীক হওয়া তার জানাজার নামায আদায় করা।তার জন্য দোয়া করা।তৃতীয় হক হলো কোন মুসলমানের দাওয়াত গ্রহন করা।দাওয়াত হতে পারে কোন অনুষ্ঠানে হাজির হওয়া বা কোন কারণে তাকে সাহায্যের জন্য হাত বাড়িয়ে দেওয়া।চতুর্থ হক হলো সাক্ষাতে সালাম দেওয়া।কোন মুসলমানের সাথে অন্য কোন মুসলমানের সাক্ষাত হলে প্রথমে সালাম দিতে হবে।পঞ্চম হক হল কোন মুসলমান হাঁচি দিয়ে আলহামদুল্লাহ বললে তার জবাবে ইয়াহাকুমল্লাহ বলা।সবশেষ হক বা ছয় নম্বর হক হল যেকোন মুসলমানকে তার বিপদের মসয় উপদেশ দান করা।আমরা যদি মুসলমানের হকগুলো গুলো মেনে জীবন যাপন করি তবে আমরা দৈনন্দিন জীবনে  অনেক সুন্দর ও সুশৃঙ্খল ভাবে আমাদের জীবন অতিবাহিত করতে পারব।মুসলমানের হকগুলো অত্যন্ত বিজ্ঞানসম্মত ও সামাজিক।পরিশেষে ইমাম সাহেব বিশ্বের সকল নির্যাতিত মুসলমানের জন্য মহান রাব্বুল আলামীনের কাছে দোয়া করেন। পবিত্র শাওয়াল মাসের তৃতীয় জুমার দিনের নামাজ যেন আমরা সবাই আল্লাহর ঘরে গিয়ে সুস্থ শরীর ও মন নিয়ে আদায় করতে পারি ্সেই দোয়া যেন আল্লাহ কবুল করেন।।আমীন।


This post first appeared on Private Coaching From Class Two To Class Five Within Minimum Cost By Ershad Sir., please read the originial post: here

Share the post

পবিত্র শাওয়াল মাসের দ্বিতীয় খুৎবা:সমসাময়িক বিষয়সহ ইমাম সাহেবের গুরুত্বপূর্ণ বয়ান----

×

Subscribe to Private Coaching From Class Two To Class Five Within Minimum Cost By Ershad Sir.

Get updates delivered right to your inbox!

Thank you for your subscription

×