Get Even More Visitors To Your Blog, Upgrade To A Business Listing >>

প্রথম জেলা হিসেবে কুমিল্লায় চালু হলো ই-ট্রাফিকিং সিস্টেম

কুমিল্লায় দেশের প্রথম জেলা পর্যায়ে ই-ট্রাফিকিং চালু হয়েছে। জেলা পর্যায়ে দেশের মধ্যে কুমিল্লায় প্রথমবারের মতো ‘পস’ মেশিনের মাধ্যমে ই-ট্রাফিকিং সিস্টেম কার্যক্রম চালু করা হলো।

বুধবার দুপুরে নগরীর কান্দিরপাড় এলাকায় এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন জেলা পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন। উদ্বোধনী দিনে সন্ধ্যা পর্যন্ত ১২টি মামলায় ৮ হাজার ৯৫০ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এদিকে এ কার্যক্রম শুরুর খবর পেয়ে হেলমেট ও কাগজপত্র সঙ্গে না নিয়ে বের হওয়া মোটর সাইকেলসহ অন্যান্য গাড়ির চালকদের নগরীর অলি-গলি পথে শহর ছেড়ে অনেকটা পালিয়ে যেতে দেখা গেছে।

জানা যায়, ই-ট্রাফিকিং ব্যবস্থায় মোটর যান চালক ও মালিকদের দ্রুত সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে কুমিল্লা জেলায় ই-ট্রাফিকিং সিস্টেম চালু করা হয়েছে। এজন্য ‘পস’ মেশিনে ট্রাফিক পুলিশের মামলা ও জরিমানা আদায় সংক্রান্ত বিষয়ে ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। বুধবার দুপুরে নগরীর কান্দিরপাড়ে পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন উপস্থিতি থেকে এ কার্যক্রম চালু করেন। নগরীর ভাটপাড়া এলাকার মোজাম্মেল হক নামে এক মোটরসাইকেল চালককে হেলমেটবিহীন অবস্থায় আটক করেন জেলা ট্রাফিকের কর্মকর্তারা। এসময় হেলমেট না থাকায় তাকে পস মেশিনের মাধ্যমে ২শ টাকা জরিমানা করা হয়। চালক মোজাম্মেল তাৎক্ষণিক ইউক্যাশের মাধ্যমে প্রথম জরিমানার টাকা পরিশোধ করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আবদুল্লাহ আল-মামুন, তানভীর সালেহীন ইমন, ডিআইও-১ মাহবুব মোরশেদ, জেলা ট্রাফিক পরিদর্শক আহমদ নূর, কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি মো. আবু ছালাম মিয়া প্রমুখ। প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে মোজাম্মেল হক জানান, আগে মোটর সাইকেল আটক করা হলে পুলিশ লাইনে গিয়ে সময়ক্ষেপণসহ নানা হয়রানির শিকার হতে হতো। ডিজিটাল পদ্ধতির এ কার্যক্রম চালু হওয়ায় তিনি সরকার ও পুলিশ বিভাগকে অভিনন্দন জানান। তিনি বলেন, নগরী বা কোথাও বের হওয়ার সময় আর কখনো হেলমেট বা কাগজপত্র ছাড়া বের হব না। এক্ষেত্রে সকলকে আরও সচেতন হতে হবে।

পুলিশ সুপার মোঃ শাহ আবিদ হোসেন বিপিএম বলেন, দেশের মধ্যে জেলা পর্যায়ে প্রথম কুমিল্লায় এ কার্যক্রম শুরু হয়েছে। নগরীসহ জেলার ১৭টি থানায় ৪৬টি পস মেশিন দেওয়া হয়েছে। এ মেশিনের মাধ্যমে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ড্রাইভিং লাইসেন্স ও পূর্বে মামলা হয়েছে কি-না এ ধরণের সকল তথ্য পাওয়া যাবে। এছাড়া মোটরযান চালকরা ব্যাংক কার্ড ব্যবহার করে ইউক্যাশের মাধ্যমে জরিমানার টাকা তাৎক্ষণিক ভাবে পরিশোধ করতে পারবেন। পর্যায়ক্রমে অন্যান্য মোবাইল ব্যাংকিংও এর সাথে যুক্ত করা হবে।

নিউজ ডেস্ক
: আপডেট, বাংলাদেশ সময় ৪:৪০ পিএম, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার
এএস

The post প্রথম জেলা হিসেবে কুমিল্লায় চালু হলো ই-ট্রাফিকিং সিস্টেম appeared first on Chandpur Times | চাঁদপুর টাইমস.



This post first appeared on ChandpurTimes, please read the originial post: here

Share the post

প্রথম জেলা হিসেবে কুমিল্লায় চালু হলো ই-ট্রাফিকিং সিস্টেম

×

Subscribe to Chandpurtimes

Get updates delivered right to your inbox!

Thank you for your subscription

×